Breaking News
Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / ৭টি দারুণ ফিচারে ঠাসা গুগলের নতুন ওএস অ্যান্ড্রয়েড এন

৭টি দারুণ ফিচারে ঠাসা গুগলের নতুন ওএস অ্যান্ড্রয়েড এন

এ বছরের মার্চেই গুগল তাদের নতুন মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কে কিছু আঁচ দিয়েছিল। এর নাম অ্যান্ড্রয়েড এন। শিগগিরই ওএস সংস্করণটি ছাড়া হবে। মে মাসে অনুষ্ঠিত বার্ষিক ডেভেলপার কনফারেন্সে অ্যান্ড্রয়েড এন-এর বিভিন্ন ফিচার সম্পর্কে তথ্য দেয় গুগল। এখানে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন প্রতীক্ষিত এই অপারেটিং সিস্টেমের ৭টি দারুণ ফিচারের কথা।

১. গুগল অ্যাসিসটেন্ট : বর্তমানে গুগল নাও-এর মাধ্যমে যে অ্যাসিসটেন্ট সিস্টমের ব্যবহার করেন, তার চেয়ে শক্তিশালী নতুন ডিজিটাল অ্যাসিসটেন্ট থাকছে এতে। এর নতুন ‘ব্যাক-অ্যান্ড-ফোর্থ ডায়ালগ’ পদ্ধতি হবে আরো প্রাণবন্ত।

২. ইন্সট্যান্ট অ্যাপ : অ্যান্ড্রয়েড এন-কে অ্যান্ড্রয়েড জেলি বিনের মতো পুরনো ওএস-এ চালানো যাবে। ইন্সট্যান্ট অ্যাপ পদ্ধতির মাধ্যমে কিছু অ্যাপ ডাউনলোড ও ইনস্টল না করেও ব্যবহার করা যাবে। যেকোনো অ্যাপ কেনা যাবে অ্যান্ড্রয়েড পে সিস্টেমের ব্যবহারে।

৩. মাল্টিউইন্ডো : এ প্রযুক্তির মাধ্যমে একযোগে দুটো অ্যাপকে বিভক্ত পর্দার দেখা যাবে। অবশ্য এটা নতুন কিছু নয়। কয়েক বছর ধরে স্যামসাং এবং এলজি’র কিছু ফোনে এর ব্যবহার প্রচলিত রয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড এন-এর কল্যাণে বহু স্মার্টফোনে এ প্রযুক্তির ব্যবহার সম্ভব হবে। এ ছাড়া এতে গুগল ‘পিকচার-ইন-পিকচার’ অপশন যোগ করেছে। এর মাধ্যমে যে অ্যাপগুলো ভিডিও চালায় তাদের ব্যবহার করা যাবে। এ সিস্টেম অনেকটা আইপ্যাড এয়ারের মতো হবে।

৪. নোটিফিকেশনের রিপ্লাই : অ্যান্ড্রয়েড হাতঘড়িতে সাধারণত এ অপশন দেওয়া থাকে। তবে নতুন অ্যান্ড্রয়েড এন-এ নোটিফিকেশনের জবাব মেসেজের মাধ্যমে দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে।

৫. একগুচ্ছ নোটিফিকেশন : যদি আপনার নোটিফিকেশনের বান্ডেলে কম অ্যালার্ট থাকে তবে এবার অভাববোধ করবেন না। মেনুর প্রতিটি অ্যাপ থেকে পৃথকভাবে নোটিফিকেশন পাবেন। আইওএস-এ নোটিফিকেশন মেনু রয়েছে যা ম্যানুয়েলি টগল রতে হয়।

৬. ডোজ প্রযুক্তি : অ্যান্ড্রয়েড মার্শমেলো ৬.০-তে প্রথমবারের মতো ‘ডোজ’ প্রযুক্তি দেওয়া হয়। ব্যাটারির শক্তি বাঁচাতে এ প্রযুক্তি ব্যাকগ্রাউন্ডের সব চালু অ্যাপ বন্ধ করে দেয়। নতুন অপারেটিংয়ে গুগল ‘প্রজেক্ট সেল্টি’ নিয়ে কাজ করছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড চালানোর জন্যে প্রয়োজনীয় মেমোরি কমিয়ে আনবে।

৭. নাইট মোড : এটা অ্যাপলের নাইট শিফট অপশনের মতো। এর মাধ্যমে রাতে অন্ধকারে পর্দার আলো চোখের জন্যে সহনশীল করা হবে। ফলে আলোর উজ্জ্বলতায় চোখে সমস্যা হবে না। এতে পর্দায় হলুদের আভা কমিয়ে আনা হবে নীল আভার চেয়ে। উজ্জ্বলতার আভাও নিজের সুবিধামতো কমিয়ে নিতে পারবেন। এখন পর্যন্ত অ্যান্ড্রয়েড এন সম্পর্কে নানা গুজব রটে চলেছে। পূর্ণাঙ্গ তথ্য আসলে কারো কাছে নেই। ঠিক কবে নাগাদ একে ছাড়া হবে তাও বলা হয়নি। সূত্র : সি নেট

Loading...

Check Also

৩৫০ বছর আগেও ছিল আইফোন!

স্টিভ জবসের পরবর্তীতে যোগ্য নেতৃত্বে এসেছেন অ্যাপলের বর্তমান প্রধান কার্যনির্বাহী টিম কুক। এই হর্তাকর্তাকে যদি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

[X]